DU-EMBA – নিয়ে সকল প্রশ্নের উত্তর

D

DU- EMBA চাকরিজীবীদের কাছে অনেক Popular. সন্ধ্যায় ক্লাস হওয়ায়, চাকরির পাশাপাশি MBA টা সময়মত শেষ করে ফেলা যায়.  শুধু তাই নয়, চাকরির বাজারে এর চাহিদাও রয়েছে প্রচুর। আর এই MBA Program নিয়ে আপনাদের করা প্রায় সকল প্রশ্নের উত্তর এইখানে দেয়া হলো। আপনাদের আরও প্রশ্ন আমাদের জানান, যা আমরা পরবর্তীতে Add করে দেবো।

প্রতিটি প্রশ্নে ক্লিক করলেই এসে যাবে উত্তর 🙂

১। পরীক্ষা দেয়ার যোগ্যতা কি?
পরীক্ষা দেয়ার জন্য মিনিমাম গ্রাজুয়েশন থাকা প্রয়োজন।

সাথে SSC + HSC + গ্রাজুয়েশন এর রেজাল্ট মিলে ৬ পয়েন্ট হতে হবে। (First Division/GPA 4 =3 point , 2nd Division/ GPA 3 = 2 point , 3rd Division / GPA 2.5 = 1 point.)

২। বছরে কয়বার পরীক্ষা হয়?
বছরে তিনবার পরীক্ষা হয়। March/July/November মাসে পরীক্ষা হয় থাকে।
৩। পরীক্ষায় কি কি আসে?
পরীক্ষায় দুইটা ভাগ আছে। ৫৫ নাম্বারের MCQ এবং ২৫ নাম্বারের Written Section.
MCQ সেকশান: এর জন্য মোট ৫৫ মিনিট সময় পাওয়া যাবে এবং ৫৫ টি MCQ প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।

  1. Math – 20 Marks
  2. English – 15 Marks
  3. Current Affairs – 10 Marks
  4. Critical Reasoning – 10 Marks

Written Section: এই সেকশানে মোট ২৫ নাম্বার থাকে। মোট ৩৫ মিনিট সময় পাওয়া যাবে Written Section শেষ করার জন্য।

  • Paragraph
  • Translation (both Bengali to English / English to Bengali)
  • Sentence Correction
  • Short note / Summary Writing
৪। মোট কতবার পরীক্ষা দেয়া যায়?
যতবার ইচ্ছা আপনি পরীক্ষা দিতে পারবেন। কিন্তু পরীক্ষার Application করতে প্রতিবার ২০২০ টাকা ফিস দিতে হয়। সুতরাং ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়ে দেয়াই ভালো।
৫। কতো বছর সময় লাগে MBA করতে?
MBA শেষ করতে সাধারণত ২ বছর সময় লাগে, যদি কোন কোর্স ড্রপ না দেয়া হয়।
৬। পরীক্ষা দিতে কি Job Experience লাগে?
পরীক্ষা দিতে Job Experience এর কোন প্রয়োজন নেই,  তবে থাকলে  পয়েন্ট একটু বেশী পাওয়া যায়, কারণ মোট ১০০ নাম্বারে ১০ নাম্বার Job Experience  এর জন্য বরাদ্ধ থাকে।
৭। কি কি বিষয়ের উপর MBA করা যায় ?
Accounting & Information system, Management, Marketing, Finance, Banking & Insurance, Management Information Science (MIS), Tourism & hospitality management, International business
৮। MBA শেষ করতে কতো খরচ হয় ?
গড়ে ২.৫ লক্ষ টাকার মতো খরচ হয়। এইটা নির্ভর করে আপনি কতদিনে MBA শেষ করছেন।
৯। Mark Distribution কিভাবে হয় ভর্তির জন্য ?
মোট ১০০ মার্কের উপর পরীক্ষার্থীদের নির্বাচন করা হয়। যার মধ্যে ৮০% ই পরীক্ষার উপর নির্ভর করে।
1.MCQ – 55
2.Written – 25
3.Viva – 5
4.Year of Schooling – 5
5.Job Experience- 10
১০। না পারলেও কি প্রশ্নের উত্তর দাগিয়ে আসবো? Negative Marking আছে কি ?
যদি Educated Guess হয় তাহলে দাগিয়ে আসা যায়। কিন্তু পরীক্ষায় Negative Marking আছে। প্রতি ভুল উত্তরের জন্য .২০ নাম্বার কাটা যায়। অর্থাৎ ৫টি ভুল উত্তর করলে একটি সঠিক উত্তরের নাম্বার কাটা যাবে।  
১১। আমার তো Job Experience নেই। আমি কি চান্স পাবো?
Job Experience এর উপর মাত্র ১০% নাম্বার। আপনি MCQ + Written সেকশানে ভালো করলে, অবশ্যই চান্স পাবেন। কারণ আপনার নিজের হাতে ৯০% নাম্বার আছে। আর ৬০% এর উপরে নাম্বার পেলে চান্স পাওয়া মোটামুটি কনফার্ম।
১২। চান্স পাওয়ার সম্ভাবনা কেমন? কতোজন পরীক্ষা দেয় ?
প্রস্তুতি নিয়ে পরীক্ষা দিলে DU – EMBA তে চান্স পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক ভালো। প্রায় ৩০০০ এর মতো পরীক্ষার্থী  প্রতিবার পরীক্ষা দেয়, সেখান থেকে ৭২০ জনের মতো সিলেক্টেড হয়। সুতরাং ভালো প্রস্তুতি থাকলে আপনি অবশ্যই চান্স পাবেন।
১৩। আমি তো চাকরি করছি, MBA কি ঠিকভাবে চালিয়ে যেতে পারবো ?

অবশ্যই পারবেন। ক্লাস সাধারণত সন্ধ্যা ৬ টার পর থেকে শুরু হয়। এবং আপনি ইচ্ছা করলে Weekend এ মিলিয়ে ক্লাস নিতে পারবেন। ক্লাসের দিন একটু আগে  অফিস থেকে বের হয়ে গেলেই, কোন সমস্যা হবে না, MBA শেষ করতে।

১৪। কিভাবে Application করবো আর Application Fee কতো ?

fbs-du.com/admission/ ওয়েবসাইট এ গিয়ে অনলাইন ফর্ম পূরণ করতে হবে। ফর্ম ফিলাপের জন্য একটি নির্দিষ্ট সময়সীমা বরাদ্ধ করা থাকে। এবং Application Fee বাবদ ২০২০ টাকা জমা দিতে হয় (Bkash/Rocket/Sure Cash এর মাধ্যমে)

2018 March EMBA Admission Circular

প্রবেশ পত্র Download  করতে ঃ http://admission.ctidu.org/

 

আমাদের জানান আপনাদের আরও প্রশ্ন। আর, বন্ধুদের সাথে Share করতে ভুলবেন না কিন্তু। আরও বিস্তারিত জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook Page এবং জয়েন করুন  Admission Preparation Group.

 

Comment Here !!

comments

Don’t want to miss? Join us in Facebook.

Recent Posts

আজকে তুমি কি সম্পর্কে জানতে চাও?